করোনা : ব্রিটেনে প্রবেশ করতে হলে নেগেটিভ সার্টিফিকেট লাগবে না হলে ৫ শ পাউন্ড জরিমানা

করোনা : ব্রিটেনে প্রবেশ করতে হলে নেগেটিভ সার্টিফিকেট লাগবে না হলে ৫ শ পাউন্ড জরিমানা

বাংলাভাষী ডেস্ক 

 দেরিতে হলেও বিদেশী নাগরিকদের ইংল্যান্ড সফরের ক্ষেত্রে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক করার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। আগামী বুধ অথবা বৃহস্পতিবার থেকে এই নিয়ম কার্যকর হতে পারে বলে আশ্বাস দিয়েছেন ব্রিটিশ ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারী গ্র্যান্টশাপ।
ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারী জানিয়েছেন, দক্ষিন আফ্রিকা থেকে সংক্রমিত নতুন করোনার সংক্রমন ঠেকাতে রোববার দিবাগত রাত ৪টা থেকে আফ্রিকার অন্তত ৯টি দেশ এবং ভারত মহাসাগরীয় দ্বীপ দেশ সেসিলাস এব মৌরিতাসের নাগরিকদের ব্রিটেনে প্রবেশের সাথে সাথে কোরানটাইন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
একই সঙ্গে আগামী সপ্তাহ থেকে বিদেশী নাগরিকদের আকাশ, জল এবং স্থল পথে ব্রিটেনে প্রেবেশের অন্তত ৭২ ঘন্টা আগে করোনা টেস্ট করিয়ে নেগেটিভ সার্টিফিকেট সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। এমন কি ছুটি বা যে কোন কারনে দেশের বাইরে থাকা ব্রিটিশ নাগরিকদেরও দেশে ফিরতে হলে অন্তত ৭২ ঘন্টা আগে করোনা টেস্ট করে নেগেটিভ সার্টিফিকেট সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। ব্যর্থ হলে জরিমানা গুনতে হবে ৫শ পাউন্ড। বর্ডার এজেন্সির সদস্যরা যাত্রীদের সঙ্গে নিয়ে আসা সার্টিফিকেট পরীক্ষা করবে। নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে ব্যর্থ হলে ঘটনাস্থলেই ৫শ পাউন্ড জরিমানা আরোপ করা হবে। নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখালেও ১০ দিন কোরানটাইনে থাকতে হবে। তবে সরকারের তালিকায় থাকা করোনার কম ঝুঁকিপূর্ণ দেশ থেকে ফিরলে হয়তো নেগেটিভ সার্টিফিকেট না দেখিয়ে অন্তত ৫ দিন কোরানটাইনের শর্তে ব্রিটেনে প্রবেশের সুযোগ পাবেন।
তবে ১১ বছরের নীচে শিশু, আকাশ, না এবং স্থলপথের যাত্রী বাহনের ক্রু বা স্টাফ এবং বিশেষ রোগি হলে নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হবে না।
নিয়মটি আপাতত ইংল্যান্ড এবং স্কটল্যান্ডে কার্যকর হবে। তবে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েলসের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে।