মন যেনো আজ ফিনিক্স পাখি (অনু গল্প)

মন যেনো আজ ফিনিক্স পাখি (অনু গল্প)

আব্দুল বাকী চৌধুরী--

--মন খারাপের সময় একা বসে আছি বারান্দায়।দোল খাচ্ছি আর পায়ে ঘসে আওয়াজ করছি, হঠাৎ করেই দু’কাপ চা নিয়ে এসে সামনে দাঁড়ালেই কি রাগ কমে যায় নাকি? ঝগড়া করার সময় মনে থাকে না কি বলছো? পোষ্যটাও ভীষণ বাজে।দেখো দেখো কেমন তোমার পায়ের কাছে চলে যাচ্ছে। হাত বাড়িয়ে কাপটা হাতে দিতেই; বলে উঠি,"থাক ওটা আমারই বানানো"। জানোই তো আমি তোমার উপর রেগে থাকতে পারিনা!

চলো, দু’জনায় বসি বারান্দায়।দেখো কেমন একফালি চাঁদের আলো বারান্দায় এসে পড়েছে। হঠাৎ ইচ্ছে হলো,তোমার কোলে মাথা রেখে শুয়ে থাকি। আমি আবোল-তাবোল বকি আর তুমি আদর করে মাথায় হাত বুলিয়ে দাও....

খুব ইচ্ছে করছে আজ পদ্মবিল যাবো তোমার সাথে। আমি শীতল জলে পা ডুবিয়ে বসে থাকবো।একটা ফুল তুলে দাও বায়না জুড়বো। হঠাৎ তুমি গান শুরু করেই, এক আঁজলা জল আমার দিকে ছিটিয়ে দিলে। অবাক হয়ে ভাবছি, তুমি হঠাৎ এত্তো রোমান্টিক হলে কবে থেকে? মাথার উপর সুনীল আকাশ,চোখ বুজে বসে রইলাম তোমার বুকে মাথা রেখে আর তোমার বুকের হার্টবিটে নিজের নাম খোঁজার চেষ্টা চালালাম ....

তোমার জন্য আজ যখন বাঁধনছাড়া আমি, তখন তো এমন পাগলামীই সাজে। সারাদিন কাশফুলের কোমল শুভ্রতায় হেসে উঠি আমি। শেষ বিকেলের রোদেলা আলোয় তোমায় খুব আদর করতে ইচ্ছে করে, ইচ্ছে করে এমনি করে কাশের মতো তোমায় ওড়াই আর নিজেও উড়ি। তুমি শুধু আমায় ছুঁয়ে থাকো- আমার গায়ে, গালে, চোখে আদর মাখিয়ে দাও...

তুমি যখন এতটাই কাছে টেনে নিয়ে কানে কানে বলো "কথা আছে", আমার সারা শরীরে বিদ্যুৎ খেলে যায়।কি জানি কোন প্রজাপতি মন আঙিনায় নেচে বেড়ায়।তোমার নিঃশ্বাস আমি স্পর্শ করতে পারি। তোমার ছোঁয়ায় প্রাণ পায় আমার পৃথিবী.....

 ◦