স্মৃতিরা ফাল্গুনীর হাওয়ায় উড়ে বসন্তদিনে

স্মৃতিরা ফাল্গুনীর হাওয়ায় উড়ে বসন্তদিনে

-গোলাম রববানী --

--সেদিনের সেইসব স্মৃতিগুলো নাড়া দিয়ে যায় যে মনে

পারিনি তখন তো আমি উঠে দাঁড়াতে চলতে ফিরতে।

কী যে ভীষণ জ্বালায় জ্বালালে হৃদয় পুড়ালে আগুনে,

ফাগুন যে কবে হাওয়ায় চড়ে চলে গেছে ঐ দূর গগনে।

সেদিনের সেই সব স্মৃতিগুলো নাড়া দিয়ে যায় যে মনে।

এখন তো বেশ সুখে আছো সুখেই থাকো সখাদের সনে,

সুখ না হয় পেলাম আমি কষ্ট না হয় মনে চিরকাল রবে।

তবুও না হয় ফিরে ফিরে ভেজাবো নয়ন আষাঢ় জলে,

নয়নের জল আর আষাঢ়িয়া জলে বড় মহব্বত প্রেমে।

সেদিনের সেই সব স্মৃতিগুলো নাড়া দিয়ে যায় যে মনে।

নীলাকাশের নীল মেঘের খামে মেঘদূতে পাঠাবো চিঠি

যদি ভুল না হয় তবে ঠিকঠাকই পৌঁছে দেবে টিয়াপাখি।

আমায় যখন তুমি পড়বে পাবে না সত্যি আর এ ভুবনে 

তখনও তোমার মন কাঁদবেনা জানি শুধুশুধু তুমি হাসবে।

সেদিনের সেইসব স্মৃতিগুলো নাড়া দিয়ে যায় যে মনে... 

মন যে আজ আর আমার মনে নেই মন কোথায় লুকালে 

সাড়ে তিন হাত মাটি নিচেই হলো আমার স্বপ্নের ঠিকানে।

তবুও সেদিনের সেইসব স্মৃতিগুলো নাড়া দিয়ে যায় মনে!