সিলেট আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে কারা আসছেন

সিলেট আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে কারা আসছেন

নিজস্ব প্রতিদেবকঃ
সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদক মনোনীত করা হয়েছিলো গত বছরের ডিসেম্বরে সম্মেলনের মাধ্যমে। পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবেন ৩ মাসের মধ্যে তারা। তবে নয়মাসেও তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেননি। সবচেয়ে বেশি জল্পনা রয়েছে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রথম সহ-সভাপতি পদ নিয়ে। এই পদে কে আসছেন তা নিয়ে আলোচনা রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে।

জেলা কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস এবং সিলেট-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সদ্য বিদায়ী জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীর মধ্যে একজন এই পদে আসতে পারেন বলে জানা গেছে।

শেষমেষ হস্তক্ষেপ করতে হয় কেন্দ্রীয় কমিটিকে। ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা কেন্দ্রে প্রেরণের জন্য কঠোর নির্দেশনা দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সেই নির্দেশনা মেনে ইতোমধ্যে সিলেট জেলা ও মহানগরে আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা কেন্দ্রের কাছে জমা দিয়েছেন দুই কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেওয়ার পর থেকেই কারা আসছেন এসব কমিটিতে এনিয়ে জল্পনা কল্পনা দেখা দিয়েছে।

তবে দুই কমিটির শীর্ষ নেতারা এ ব্যাপারে মুখ খুলতে চাননি। আর পদপ্রত্যাশী নেতারা এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। কয়েকজন সিনিয়র নেতা অভিযোগ করেছেন, তাদের সাথে কোনো আলোচনা না করেই সভাপতি-সম্পাদক মিলে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে কেন্দ্রে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

জানা যায়, গত রোববার জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রের কাছে জমা দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান। আর সোমবার রাতে মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ খসড়া কমিটি কেন্দ্রীয় দপ্তরে জমা দেন মহানগরের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন।

আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা জানিয়েছেন, পুরনোদের বেশিরভাগই নতুন কমিটিতেও থাকছেন। প্রায় ৭০ শতাংশ পদগুলোতে পুরনোরাই থাকছেন। বাকী পদগুলোতে আসবেন নতুনরা। জেলার চেয়ে মহানগর কমিটিতে নতুনদের বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। কিছু পদে রদবদল হতে পারে বলেও জানিয়েছেন তারা। আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, জেলা ও মহানগর দুই কমিটিরই ৭৫ জনের তালিকা কেন্দ্রে জমা দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান বলেন,  জেলা আওয়ামী লীগের ৭৫ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রে জমা দিয়েছি। কমিটিতে বেশিরভাগ পুরনো নেতাদেরই রাখা হয়েছে। এছাড়া কিছু নতুন মুখও আসছেন। তবে জমা দেওয়া কমিটিতে কারা আসছেন এ ব্যাপারে কিছু বলতে চাননি তিনি।সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন বলেন, নতুন-পরনোর সমন্বয়ে কমিটি গঠন করে আমরা কেন্দ্রে জমা দিয়েছি। এখন কেন্দ্রীয় কমিটি এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির পরবর্তী সভায় এসব কমিটি নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ৫ ডিসেম্বর সম্মেলনের মাধ্যমে গঠিত হয় সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি। এতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন এডভোকেট লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক হন এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। আর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক হন অধ্যাপক জাকির হোসেন।