হালচালে সত্য পাপ

হালচালে সত্য পাপ


গোলাম রববানী ---

আমি অনেকবার চেয়েছি ন্যায্য কথাটি বলে ফেলি
ঠিক যতবার ভেবেছি আমি অই শব্দগুলো হারিয়েছি
হারিয়েছি ঠিক বলব না
হয়তো ব্যবহার করা হয় নি
কিংবা কবিতার বুকে লিখতে পারিনি
প্রত্যন্ত এলাকার বাসিন্দা কর্মকার 
হারাধন কিংবা রতন ঋষির মনের কথাও!

তারা শব্দগুলো হরণ করে নিয়ে গেছে
সেই কবে কিন্তু শব্দগুলো মনের অভিধানে জ্বাজ্জল্যমান
মুখ ফসকে বের হলেই তো চন্দ্র সূর্য খসে পড়বে, মরণ!
এ মরণ নির্মমতার এ মরণ নির্লজ্জতার! সত্য পাপ!

রাজপথে মিছিলে শ্লোগানে বক্তৃতায় 
জনসভার মঞ্চে কিংবা সব বিদ্যাপীঠে 
অথবা কোটি বিশ্বমঞ্চের দাবি সূর্য পশ্চিম দিকে ওঠে!
অবাক পৃথিবী! হে শিশু তোমার অবাক হবার কিছু নেই!
এখন অনুজরাও বোঝে! অগ্রজের কথা নাই বা বললাম!
আটশো কোটির পৃথিবী তবুও এভাবে এগিয়ে যায়
আমি নিরুপায়! আমি অনুচিকীর্ষা কিংবা উপচার!

০২ ভাদ্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ