বৃহস্পতিবার ১ জানুয়ারি, ১৯৭০
সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজে আগামী বছরেই ভর্তি
১৫ এপ্রিল, ২০১৮


বাংলাভাষী ডেস্ক::
সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজে আগামী সেশন থেকেই ছাত্র ভর্তির চিন্তা করছেন কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে সদর উপজেলার কাঠইড় মৌজায় সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অবকাঠামো নির্মাণ কাজও সম্পন্ন হবে। অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বৃহস্পতিবার বিকালে এই তথ্য জানিয়ে বলেন,‘সুনামগঞ্জবাসীর এই স্বপ্নপূরণে আমি চেষ্টার কোন ত্রুটি করছি না।’
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠইড় মৌজায় সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের জন্য ৩৫ একর জমি অধিগ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই জমির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ কোটি ২৮ লাখ ৫৯ হাজার টাকা। সুনামগঞ্জ-সিলেট মহাসড়ক ঘেষে মদনপুর-দিরাই সড়কের উভয় পাশেই সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজের জমি অধিগ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে বেশিরভাগ জমি অধিগ্রহণ হচ্ছে মদনপুর দিরাই সড়কের উত্তরপাশে।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যশিক্ষা বিভাগ ও স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ দুটোই এই প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছে। এছাড়া স্থাপত্য অধিদপ্তর কর্তৃক সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের নকশা ও অবকাঠামো প্রণয়নের কাজ হচ্ছে।
সুনামগঞ্জ গণপূর্থ বিভাগ ইতিমধ্যে মাটিভরাট ও অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য ৬৫৭ কোটি টাকার সম্ভাব্য ব্যয় নির্ধারণ করেছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন,‘এই মাসের মধ্যেই সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) তৈরি করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যাচাই-বাছাই করে আগামী মাসেই প্রজেক্ট ইভালুয়েশন কমিটিতে (পিইসিতে) পাঠাবে। পিইসি যাচাই-বাছাই শেষে এটি প্রিএকনেক’এ যাবে। এরপর এটি একনেক’এ উপস্থাপন হবে। আগামী ২ মাসের মধ্যেই এসব প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে বলে জানান ঐ কর্মকর্তা।
স্বাস্থ্য মন্ত্রলয়ের এই প্রকল্পের প্রোগ্রামার আরাফাতুর রহমান বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে জানান,‘আমরা আগামী সপ্তাহের মধ্যেই এই প্রকল্পের আনুমানিক প্রাক্কলন তৈরি করে
ডিপিপি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠাব। আগামী মঙ্গলবার এই লক্ষে সভা ডাকা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এই সভায় সভাপতিত্ব করবেন।’ তিনি জানান, এই প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নের চেষ্টা হচ্ছে একদিকে। অন্যদিকে আগামী সেশন থেকেই সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজে ছাত্রভর্তি শুরু হবে। এজন্য সরকারি কোন ভবন ব্যবহার করে অথবা কোন একটি ভবন ভাড়া নিয়ে মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম শুরু করা হবে।
অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের পক্ষে এই প্রকল্পের কার্যক্রম দেখভালের দায়িত্ব পালন করছেন শিল্পপতি শ্যামল রায়। শ্যামল রায় জানান,‘সুনামগঞ্জের মানুষের প্রত্যাশিত এই প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বারবারই সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলছেন। তাঁর নির্দেশে আমি প্রতিদিনই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরে যোগাযোগ করছি। আমরা আশা করছি আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যেই এই প্রকল্প একনেক’এ অনুমোদিত হয়ে অবকাঠামো নির্মাণ কাজ শুরু হবে।’
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেন,‘আমার নিজের এবং সুনামগঞ্জবাসীর বহুদিনের স্বপ্ন সুনামগঞ্জে মেডিকেল কলেজ এবং হাসপাতাল দেখার। আমি এই প্রকল্পের কাজ আগামী নির্বাচনের আগেই শুরু দেখতে চাই। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টরা চিন্তা করছেন আগামী সেশনেই সুনামগঞ্জ মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম শুরু করতে। আমরা সেই চেষ্টাও করছি। আমার পক্ষে এই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিতে সুনামগঞ্জের ছেলে শ্যামল রায়কে দায়িত্ব দিয়েছি। সে প্রতিদিনই প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি খোঁজ নিয়ে আমাকে জানাচ্ছে।’



সম্পাদক : মোঃ ওলিউর রহমান খান প্রকাশক : মোঃ শামীম আহমেদ
ফোন : +44 07490598198 ই-মেইল : news@banglavashi.com
Address: 1 Stoneyard Lane, London E14 0BY, United Kingdom
  কপিরাইট © 2015-2017
banglavashi.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত
বাস্তবায়নে : Engineers IT